ক্যাপিটল হিল হামলার বিষয়ে ট্রাম্পের নথি বর্তমানে প্রকাশ নয়

ক্যাপিটল হিল হামলার বিষয়ে ট্রাম্পের নথি বর্তমানে প্রকাশ নয়

ক্যাপিটল হিল হামলার বিষয়ে ট্রাম্পের নথি বর্তমানে প্রকাশ নয়

ক্যাপিটল হিল হামলার বিষয়ে ট্রাম্পের নথি বর্তমানে প্রকাশ নয়, একটি মার্কিন আদালত ক্যাপিটল হিলে

হামলা সংক্রান্ত হোয়াইট হাউসের নথি প্রকাশ স্থগিত করেছে। যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড

ট্রাম্পের অনুরোধে বৃহস্পতিবার এ আদেশ জারি করা হয়। খবর এএফপি।প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের

উগ্র সমর্থকরা 8 জানুয়ারী ইউএস ক্যাপিটল হিলে হামলা চালায়। ফেসবুক এবং টুইটারের মতো সোশ্যাল

মিডিয়াতে ট্রাম্পের উস্কানিমূলক পোস্ট থেকে সহিংসতা ছড়িয়ে পড়ে। হাউস সিলেক্ট কমিটি ঘটনার

তদন্ত করছে। তদন্তের অংশ হিসেবে হোয়াইট হাউসের কাছে নথিও দাবি করেছে তারা। মঙ্গলবার মার্কিন জেলা

আদালতের বিচারক নথি প্রকাশের নির্দেশ দেন।বর্তমান প্রেসিডেন্ট জো বিডেন ইতিমধ্যে হোয়াইট

হাউসের নথি প্রকাশের অনুমোদন দিয়েছেন।

আরও নতুন নিউস পেতে আমাদের সাইট:ukhealthz.xyz

ক্যাপিটল হিল হামলার বিষয়ে ট্রাম্পের নথি বর্তমানে প্রকাশ নয়

এগুলো জাতীয় আর্কাইভে সংরক্ষিত আছে। শুক্রবার প্রথম পর্যায়ে কিছু নথি হাউস প্যানেলকে সরবরাহ করার কথা ছিল। তবে নথিপত্র প্রকাশ স্থগিত করার জন্য আদালতকে অনুরোধ করেন ট্রাম্প। গতকাল তার আবেদনে সাড়া দেন আদালত। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ডিসি সার্কিট কোর্ট অফ আপিল সাময়িকভাবে নথি প্রকাশ স্থগিত করেছে। তবে আদালত বলেছেন, আগামী ৩০ নভেম্বর যুক্তিতর্ক উপস্থাপন বহাল থাকবে।তিন বিচারকের প্যানেল বিশেষভাবে বলেছে যে এই পদক্ষেপ কোনোভাবেই মামলাকে প্রভাবিত করবে না।হাউস সিলেক্ট কমিটি হোয়াইট হাউস থেকে ট্রাম্পের শীর্ষ সহযোগীদের তথ্য এবং প্রেস সেক্রেটারিকে ট্রাম্পের নির্দেশের অনুলিপি সহ ৭০ পৃষ্ঠার বেশি নথির অনুরোধ করেছে।প্রেসিডেন্ট থাকাকালীন ট্রাম্পের কর্মকাণ্ড, বিভিন্ন সফর, সংবাদ সম্মেলন ও ফোনালাপের তথ্য হোয়াইট হাউসের দৈনিক ডায়েরিতে রেকর্ড করা আছে।

যাদের কাছে তথ্য চাওয়া হয়েছে তাদের

মধ্যে রয়েছে ট্রাম্পের প্রাক্তন চিফ অফ স্টাফ মার্ক মিডোস, তাঁর প্রাক্তন সিনিয়র উপদেষ্টা স্টিফেন মিলার এবং তাঁর প্রাক্তন ডেপুটি উপদেষ্টা প্যাট্রিক ফিলবিন। ট্রাম্পও এই দৈনিক ডায়েরি প্রকাশে বাধা দেওয়ার চেষ্টা করছেন।বিদায়ী রাষ্ট্রপতি রদ্রিগো দুতের্তের মেয়ে সারা দুতের্তে, ফিলিপাইনে ২০২২ সালের ভাইস প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। স্থানীয় সময় শনিবার দেশটির নির্বাচন কমিশন এ কথা জানিয়েছে। খবর এএফপি।রদ্রিগো দুতার্তে আর ফিলিপাইনের প্রেসিডেন্ট পদে লড়বেন না। কারণ, দেশের সংবিধান অনুযায়ী ছয় বছরের বেশি কেউ রাষ্ট্রপ্রধান থাকতে পারেন না। মাদকের বিরুদ্ধে যুদ্ধের নামে বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ডের জন্য আন্তর্জাতিক বিচার আদালতেও তার তদন্ত চলছে। সব মিলিয়ে আগামী নির্বাচনে তার মেয়ে দুরত্তের উত্তরসূরি হবেন বলে ধারণা করা হচ্ছিল।

নির্বাচন কমিশন তার ফেসবুক পেজে

নিশ্চিত করেছে যে সারা দুতের্তে আগামী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন।দুতের্তের মুখপাত্র ক্রিস্টিনা গার্সিয়া ফ্রাসকো ফেসবুকে বলেছেন, সারা দুতের্তে লুকাস-সিএমডি পার্টি থেকে একজন প্রতিনিধির মাধ্যমে ভাইস প্রেসিডেন্ট পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতার জন্য মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। ১৫ নভেম্বর মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিন, নির্বাচন আগামী বছরের মে মাসে।এই মুহূর্তে সারা দুতের্তে শহরের মেয়র হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। তিনি এত দিন বলে আসছেন আগামী মেয়র নির্বাচনেও অংশ নেবেন, মনোনয়নপত্রও জমা দিয়েছেন। তবে গত সপ্তাহে হঠাৎ করে মেয়র নির্বাচন থেকে নিজেকে প্রত্যাহার করে লাকাস-সিএমডি দলে যোগ দেন তিনি।সাবেক ফিলিপাইনের একনায়কের ছেলে ফার্দিনান্দ মার্কোস জুনিয়র ল্যাকাস-সিএমডি পার্টি থেকে প্রেসিডেন্ট পদে লড়বেন। জরিপ অনুযায়ী, জনপ্রিয়তার বিচারে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের মধ্যে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন তিনি।